Image Description

কাজী আবদুল ওদুদের জীবনী

120.00
($5.00, £3.00)
Format Paperback
Language Bangla
ISBN 984 20 0019-2
Edition 1st
Pages 120

সাহিত্যশিল্পী কাজী আবদুল ওদুদ বাঙালি মুসলমান সমাজে একটি বিশেষ সময়ের চিত্তবৃত্তির উত্থান-উজ্জীবনের নাম এবং সে সমাজে প্রগতিশীল চিন্তা-চেতনার স্মারক; অন্য অর্থে পথিকৃৎ। সে সমাজে নবজাগরণ আনা তাঁর অভীষ্ট লক্ষ্য ছিল। বর্তমান জীবনীগ্রন্থে এই মনীষী-লেখকের বিস্তৃত জীবন, কর্ম ও রচনা-পরিচিতি যথাসম্ভব নির্ভুলভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে। সে সঙ্গে তাঁর সম্পর্কে প্রচলিত জীবনীগ্রন্থগুলোর কিছু কিছু ভুল-ভ্রান্তি, অপূর্ণতা ও বিতর্ক অপনোদনের প্রয়াস্েতে নেওয়া হয়েছে। বলাবাহুল্য, েএকটি বড় কাজের অতিরিক্ত প্রাপ্তি হিসেবে এই গ্রন্থটির সৃষ্টি। অর্থাৎ ‘কাজী আবদুল ওদুদের রচনা ও বাঙালি মুসলমান সমাজ’ বিষয়ে পি-এইচ. ডি. গবেষণার সংশ্লিষ্ট অতিরিক্ত কাজ হিসেবে নির্মিত এই জীবনীগ্রন্থটি। মূল থিসিসের বাইরে এই জীবনীগ্রন্থটিকে একটি পৃথক গ্রন্থরূপে প্রকাশের ব্যাপারে শ্রদ্ধাভাজন প্রফেসর মুস্তাফা নূরউল ইসলাম ও প্রফেসর মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান আমাকে সর্বপ্রথম পরামর্শ দেন। প্রধানত তাঁদের পরামর্শের ভিত্তিতেই এই গ্রন্থটির প্রকাশ।

Nurul Amin / নুরুল আমিন

গবেষক, প্রাবন্দ্বিক, সমালোচক, ছড়াকার ও কবি নুরুল আমিন (ড. মোহাম্মদ নুরুল আমিন, প্রফেসর, বাংলা বিভাগ, চট্টগাম বিশ্ববিদ্যালয়) 1956 সালের 8 নভেম্বর চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া থানার চুনতি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা আলহাজ্ব আবুল ফয়েজ, মাতা বেগম হাফেজা খাতুন। তিনি কৃতিত্বের সাথে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল থেকে এস.এস.সি, সরকারী কমার্স কলেজ থেকে এইচ. এস. সি. চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বি.এ. অনার্স ও এম. এ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পি. এইচ. ডি. ডিগ্রি লাভ করেছেন। ছাত্রজীবন থেকে লেখালেখি করে আসছেন। কলেজিয়েট স্কুলের 1971-72 বার্ষিক ম্যাগাজিনে ‘বাঙালির ঐতিহ্য’ শীর্ষক প্রথম প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়। ছাত্রজীবনেই কবিতা ও প্রবন্ধের জন্য পুরস্কৃত হন কয়েকবার। তাঁর উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ ‘লেগে আছে শ্যামল ছায়া’, ‘স্বপ্ন দেখি সুন্দরের’, প্রবন্ধ-গবেষণা গ্রন্থ ‘আবুল মনসুর আহমদের কথাসাহিত্য’, ‘বঙ্কিমচন্দ্রের হাস্যরসাত্মক রচনা’, ‘কবিকথা ও অন্যান্য’, ‘কাজী আবদুল ওদুদের রচনা ও বাঙালি মুসলমান সমাজ’, ‘কাজী আবদুল ওদুদের জীবনী’ এবং শিশুকিশোর ছড়ার বই ‘বুনো হাঁস পাতি হাঁস’। এছাড়া তিনি বাংলা একাডেমী প্রকাশিত ‘কাজী আবদুল ওদুদ রচনাবলীও সম্পাদনা করেন। বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির দশ খণ্ডের ‘ন্যাশনাল এনসাইক্লোপেডিয়া অব বাংলাদেশে-এর তিনি একজন সহযোগী লেখক। আশৈশব সৃষ্টিশীল ড. আমিন গবেষণার ক্ষেত্রেও সীরিয়াস। এই 2003 সালেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘সাহিত্য পত্রিকা’, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের গবেষণা পত্রিকা ‘পাণ্ডলিপি’, দর্শন বিভাগের গবেষণা পত্রিকা ‘প্রজ্ঞা’ সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ‘Journal of Social Science’ বাংলা একাডেমীর পত্রিকা’, ‘সুধীন্দ্রনাথ দত্ত স্মারকগ্রন্থ’, এশিয়াটিক সোসাইটির ‘বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি পত্রিকা’য় প্রকাশিত হয় তাঁর একাধিক গবেষণা প্রবন্ধ। তবে লেখার ক্ষেত্রে তিনি সব সময়ই সংখ্যায় নয়-মানেই বিশ্বাসী।